লৌহজংয়ে যুবক হত্যার নেপথ্যে পাওনা টাকা!

জেলা খবর

লৌহজংয়ে পাওনা টাকা চাওয়ায় দুই ভাগ্নে মিলে মামাকে খুন করে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ অভিযোগ তুলেছেন নিহত ইব্রাহিম হাওলাদারের স্ত্রী শিরিন আক্তার লিমা। এদিকে খুনের ঘটনায় ইব্রাহিম হাওলাদারের বোন সুলতানা বেগমকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শিরিন আক্তার লিমার ভাষ্য, তাঁর স্বামী ১১ বছর সৌদি আরব ছিলেন। তিনি বিদেশে ১১ বছর যা রোজগার করেছিলেন, তা সুলতানার কাছেই পাঠিয়েছিলেন। কিন্তু সেই পাওনা টাকা দিতে টালবাহানা শুরু করে সুলতানা।

শিরিন আক্তার আরো বলেন, ‘গত শুক্রবার আমি স্বামীকে নিয়ে বাবার বাড়ি যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলাম। ওই সময় আমার স্বামীকে ডেকে পাঠায় সুলতানা। পরে কথা-কাটাকাটির একপর্যায়ে দুই ভাগ্নে সেলিম ও শামিম টর্চ লাইট দিয়ে আমার স্বামীর গলা ও ঘাড়ে আঘাত করে। তাৎক্ষণিকভাবে আমার স্বামী মাটি লুটিয়ে পড়েন। এরপর স্থানীয়দের সহয়তায় হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।’

লৌহজং থানার ওসি (অপারেশন) মো. জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, ইব্রাহিমের স্ত্রী তিনজনকে আসামি করে মামলা করেছেন। এরই মধ্যে গ্রেপ্তার সুলতানাকে রিমান্ডে নিতে পাঠানো হয়েছে আদালতে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *