মাদক ব্যবসায়ী দুলালের মাদক ও সন্ত্রাসী কার্যক্রমে অতিষ্ঠ এলাকাবাসী।

জনদুর্ভোগ

সরকার যখন মাদকের বিরুদ্ধে সারাদেশে মাদক বিরোধী অভিযান অব্যহত রেখেছে। মাদকের বিরুদ্ধে প্রশাসনের জিরোটলারেন্স অভিযান চলছে। শহর থেকে গ্রাম পর্যন্ত মাদক বিরোধী অভিযানে মুন্সীগঞ্জসহ সারাদেশে নিহত হয়েছে অনেক বড় বড় মাদক ব্যবসায়ীরা।

কিন্তুু মুন্সীগঞ্জের  গজারিয়া উপজেলার পোড়াচক বাউশিয়া পূর্ব নয়াকান্দি এলাকার এক মাদক মামলার আসামী কুখ্যাত মাদক সম্রাট মোঃ দুলাল (৪০) ধরা ছোয়ার বাইরে রমরমা মাদক ব্যবসা করছে এলাকায় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। মাদক সম্রাট দুলাল উপজেলার পোড়াচক বাউশিয়া পূর্ব নয়াকান্দি এলাকার বাসিন্দা।

এই মাদক ব্যবসায়ীর নামে আছে থানায় একাধিক মামলা। কুখ্যাত এ মাদক ব্যবসায়ী কে প্রশাসন গ্রেপ্তার না করায় হতাশ এলাকাবাসী।

জানা গেছে, একাধিক মাদক মামলা ও সন্ত্রাসী মামলার আসামী কুখ্যাত মাদক সম্রাট দুলাল বর্তমানে গজারিয়া উপজেলায় রমরমা মাদক ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে প্রশাসনের ধরা ছোয়ার বাইরে থেকে। সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত তার নিজের সঙ্গীসাথীদের সঙ্গে  করে বিভিন্ন স্থানে ফেনসিডিল, গাঁজা ও ইয়াবা বিক্রয় করছে প্রকাশ্যে। সকাল থেকে বিভিন্ন এলাকা থেকে প্রায় ১০০ মটোরসাইকেল যোগে প্রতিনিয়ত যুবকরা মাদক সেবনের জন্য গজারিয়া উপজেলার পূর্ব নয়াকান্দি ছুটে আসে মাদক ব্যবসায়ী দুলালের কাছে।

মাদক ব্যবসায়ী দুলাল তার নিজ বাড়িতে তার ফ্যামিলির সকলে মিলে এই ব্যবসার সাথে জড়িত । তার নিজ বাড়িতে মাদকের স্পর্ট তৈরি করেছে এ মাদক ব্যবসায়ী দুলাল। দীর্ঘদিন যাবত মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত সে। গ্রাম এলাকা হওয়ার সুবাদে প্রশাসনের ধরা ছোয়ার বাইরে রয়ে গেছে মাদক সম্রাট দুলাল।

এলাকাবাসী সুত্রে আরো জানা গেছে, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় সশস্ত্র মহড়া দিয়ে থাকেন এই কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী দুলাল। জানা যায় গত বৃহস্পতিবার তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দা কুড়াল নিয়ে এলাকার এক ব্যবসায়ীকে হত্যার হুমকি দেন  দুলাল। স্থানীয়দের অভিযোগ, মাদক ব্যবসায়ী দুলালকে মাদক ব্যবসা বন্ধের প্রতিবাদ করলে শুরু হয় তার অত্যাচার এবং সে দা-কুড়াল নিয়ে যায় মানুষকে হত্যা করার জন্য।

তার অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে গত বৃহস্পতিবার রাতে গ্রামের ৪ নং ও ৫ নং ওয়ার্ডের গ্রাম বাসী সম্মিলিতভাবে মাদক ব্যবসায়ী দুলালের বিরুদ্ধে করেন এক বিশাল প্রতিবাদ সভা। এই সভায় উপস্থিত ছিলেন এলাকায় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ সহ পুলিশ সদস্য এস অই তানভীর। এই বিক্ষোভ সমাবেশের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করেছেন বাউশিয়া ইউনিয়ন এর সুযোগ্য চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান প্রধান।

বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সরকারবাড়ি মহল্লার মোহাম্মদ মুসা সরকার। পূর্ব নয়াকান্দির বিশিষ্ট সমাজসেবক ও ব্যবসায়ী হাসান জাহাঙ্গীর ও এলাকার সম্মানিত ব্যক্তিবর্গ। সমাবেশে মাদক বিরোধী আন্দোলনের জন্য একটি মাদক বিরোধী ও সমাজের অবক্ষয় রোধে কমিটি আহ্বান করা হয়।  উক্ত কমিটিতে মোঃ কাউছার সরকার কে আহবায়ক ও মোঃ হালিম দেওয়ান ( বাবু ) কে সদস্যসচিব করে ৪১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *