ধামরাইয়ে তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষণের শিকার

জেলা খবর

ধামরাইয়ের ছোট কালামপুর (ভালুম) আদর্শ গ্রামে তৃতীয় শ্রেণির একছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। সোমবার এ ঘটনায় ধামরাই থানায় একটি মামলা হয়েছে। আজ ওই ধর্ষিতাকে মেডিক্যাল টেস্টের জন্য ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে প্রেরণ করে পুলিশ। তবে ঘটনার পরই ধর্ষক হৃদয় হোসেন এলাকা থেকে গা ঢাকা দিয়েছে।

জানা গেছে, ধামরাইয়ের ছোট কালামপুর আদর্শ গ্রামের প্রবাসী আব্দুল হালিমের ছেলে হৃদয় হোসেন (২৩) একই এলাকার তৃতীয় শ্রেণির এক ছাত্রীকে প্রায়ই উত্ত্যক্ত করতো। সোমবার বংশী নদী থেকে গোসল করে বাড়ি ফেরার পথে ভয়ভীতি দেখিয়ে ওই ছাত্রীকে একটি ঘরের ভেতর আটকে ধর্ষণ করে। এসময় তার চিৎকারে আশেপাশের লোকজন এগিয়ে গেলে ধর্ষক হৃদয় হোসেন দৌড়ে পালিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে ধামরাই থানার এসআই সেকেন্দার আলী জানান, ধর্ষককে আটকের চেষ্টা চলছে এবং ধর্ষিতাকে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে প্রেরণ করা হয়েছে।

এলাকাবাসী জানায়, ধর্ষক হৃদয় কিছুদিন আগে বিয়ে করেছে। এরপরও তার চলাফেরা ভালো ছিল না। সে প্রায়ই ছোট ছোট বাচ্চা মেয়েদের উত্ত্যক্ত করতো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *