তিন মাসের মধ্যে হটলাইন চালু করতে হাইকোর্টের নির্দেশ

জাতীয়

ভোক্তারা যাতে সার্বক্ষণিক অভিযোগ জানাতে পারে, তার জন্য তিন মাসের মধ্যে আউটসোর্সিংয়ের মাধ্যমে একটি হটলাইন চালু করতে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরকে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। এই হটলাইন চালুর জন্য প্রয়োজনীয় অর্থছাড়ে বাণিজ্য ও অর্থ মন্ত্রণালয়কে পদক্ষেপ নিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আদালত আগামী ১৫ অক্টোবরের মধ্যে হটলাইন চালু কার্যক্রমের অগ্রগতি জানাতে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরকে নির্দেশ দিয়েছেন।

অন্যদিকে বিভিন্ন পণ্যের মান পরীক্ষা নিয়ে বিএসটিআইয়ের কার্যক্রম সম্পর্কে প্রশ্ন তুলে আদালত বলেছেন, ‘বিএসটিআই যেসব পণ্য নিম্নমানের পেল, সেসব পণ্য দ্বিতীয়বার পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে গেল। এটা নিয়ে জনমনে প্রশ্ন রয়েছে। তাই যেসব পণ্য বিএসটিআইয়ের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছে সেগুলো আমরা পরীক্ষা করাব।’

এ ছাড়া নিম্নমানের ও ভেজাল পণ্যের বিরুদ্ধে উপজেলা, ইউনিয়নসহ সব জায়গায় বছরজুড়ে অভিযান অব্যাহত রাখতে নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ ও বিএসটিআইকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি মো. বদরুজ্জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চ গতকাল মঙ্গলবার এ আদেশ দেন। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ভেজাল ও নিম্নমানের পণ্য নিয়ে ভোক্তা অধিকার সংস্থা ‘কনসাস কনজ্যুমার্স সোসাইটি’ (সিসিএস)-এর করা এক রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে এ আদেশ দেন আদালত। আদালত আগামী ১৫ অক্টোবর পরবর্তী আদেশের জন্য দিন ধার্য করেছেন।

গতকাল রিট আবেদনকারীর পক্ষে আইনজীবী ছিলেন ব্যারিস্টার শিহাব উদ্দিন খান, নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার ফরিদুল ইসলাম, ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার কামরুজ্জামান কচি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *