কর্ণফুলীতে প্রথমবারের মতো সরকারি চাল পেল ৪ শতাধিক জেলে পরিবার

জেলা খবর

দীর্ঘদিন ধরে মাছ ধরে জীবিকা নির্বাহকারী জেলেদের জন্য সরকারি সুযোগ-সুবিধার ব্যবস্থা থাকলেও কর্ণফুলীর জেলে পরিবারগুলো সে সুবিধার মুখ দেখেনি কখনো। জেলে হিসেবে স্বীকৃতি থাকলেও কোনো সময় সরকারি সুযোগ-সুবিধা পায়নি তারা। প্রথমবারের মতো ৪ শতাধিক জেলে পরিবার চাল পেলে। আজ মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলা জুলধা ইউনিয়ন পরিষদ হলরুমে জেলেদের চাল বিতরণী উদ্বোধন করা হয়।

জানা যায়, উপজেলার মৎস্য অধিদপ্তরের নিবন্ধনকৃত বড়উঠানের ইউনিয়নের ১১৯, জুলধা ইউনিয়নের ১২৩, চরলক্ষ্যা ইউনিয়নের ৬১, চরপাথরঘাটা ইউনিয়নের ৯৬ ও শিকলবাহা ইউনিয়নের একজনসহ মোট ৪ শতাধিক জেলে পরিবারকে ৪৬ কেজি ৫০০ গ্রাম করে চাল বিতরণ করা হয়।

জুলধা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রফিক আহমদের সভাপতিত্বে চাল বিতরণী উদ্বোধন করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান ফারুক চৌধুরী। এ সময়ে উপস্থিত ছিলেন ইউপি সদস্য ইমাম হোসেন, জাসেদ উদ্দিন পিয়ারু, মোহাম্মদ ওসমান, সাজ্জাদ খান সুমন, ইউপি সদস্যা জোহরা মোর্শেদা প্রমুখ।

দক্ষিণ শাহমীরপুর এলাকার জেলে অধীর দাশ বলেন, দীর্ঘদিন ধরে জেলে হিসেবে থাকলেও কোনোদিন সরকারি সুযোগ-সুবিধা পাইনি। এবারই প্রথম সরকারি চাল পেলাম। এখন আমাদের জীবন চালানোও আর কষ্টসাধ্য হবে না।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান ফারুক চৌধুরী বলেন, এরা মৎস্যজীবী, জীবন জীবিকা নির্বাহ করে নদীতে। তাদেরই সরল স্বীকারোক্তি কোনোদিন কোনো বরাদ্দ পাইনি। বরাদ্দবঞ্চিত ৪ শ জেলের মৎস্য মন্ত্রণালয়ের বরাদ্দকৃত জনপ্রতি ৪৬ কেজি ৫০০ গ্রাম করে চাল পাওয়ার ব্যবস্থা করে হাসি ফোটালেন আমাদের অভিভাবক মাননীয় ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী মহোদয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *