আন্দোলনে ব্যর্থরা এখন গুজব বেছে নিয়েছে : আইজিপি

জাতীয়

ছেলেধরা গুজব ছড়িয়ে পিটিয়ে মানুষ হত্যার ঘটনায় আজ বৃহস্পতিবার থেকে গুজববিরোধী সচেতনতা সপ্তাহ পালন করবে পুলিশ। শুক্রবার জুমার নামাজের খুতবায় এ বিষয়ে বলার জন্য মসজিদের ইমামদের অনুরোধ করা হয়েছে। গতকাল বুধবার পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ

পাটোয়ারী এ কথা জানিয়েছেন।

আইজিপি বলেন, একটি স্বার্থান্বেষী মহল সুপরিকল্পিতভাবে পরিস্থিতি অস্থিতিশীল করার চেষ্টা করছে। শুধু দেশে না, দেশের বাইরে থেকেও এ ধরনের গুজব ও ফেসবুক পোস্ট এসেছে। উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত করতে এ ধরনের গুজব ছড়ানো হচ্ছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, সকল আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে এই সহজ পথটি অর্থাৎ ফেসবুকসহ বিভিন্ন মাধ্যমে গুজব ছড়ানোকে বেছে নিয়েছে তারা।

গুজব প্রতিরোধে পুলিশের করণীয় এবং আজ বৃহস্পতিবার থেকে গুজববিরোধী সপ্তাহ পালনের বিষয়টি জানাতে গতকাল সকালে পুলিশ সদর দপ্তরে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন আইজিপি। এতে র‌্যাবের মহাপরিচালক, পুলিশ সদর দপ্তর ও ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

আইজিপি জানান, ছেলেধরা গুজব সৃষ্টিকারীদের মধ্যে এক ব্যক্তি দুবাইয়ে থাকেন। তাঁকে পুলিশ শনাক্ত করেছে। তিনি বলেন, ‘গণপিটুনির ঘটনায় যাঁরা নিহত হয়েছেন, তাঁরা সবাই নিরীহ, কেউ ছেলেধরা নন। গুজব ও গণপিটুনির ঘটনায় এ পর্যন্ত ৩১টি মামলা হয়েছে। এসব ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ১০৩ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।’

এক প্রশ্নের জবাবে পুলিশ প্রধান বলেন, গুজব ছড়ানোর অভিযোগে ৬০টি ফেসবুক আইডি, ২৫টি ইউটিউব লিংক এবং ১০টি অনলাইন পোর্টাল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। জনসাধারণের উদ্দেশে আইজিপি বলেন, ‘আইন নিজের হাতে তুলে নেবেন না। আপনি আইন হাতে তুলে নিলেন মানে অজান্তে হত্যা মামলায় জড়িয়ে গেলেন।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *